Tuesday , October 23 2018
Breaking News
Home / Others / মেয়েটি এই নীল ড্রেসটি পড়ে শীঘ্রই মারা যায়, আর এখন সবাই তার এই নীল ড্রেসটি পড়তে চায়…

মেয়েটি এই নীল ড্রেসটি পড়ে শীঘ্রই মারা যায়, আর এখন সবাই তার এই নীল ড্রেসটি পড়তে চায়…

১৬ বছরের ক্যাথরিন মালাটেস্টার প্রম গাউনটি খুব পছন্দের ছিল। সে খুব অসুস্থ থাকা সত্ত্বে গাউনটা খুব সুন্দর করে পড়েছিল, যা তাকে খুব ভাল মানিয়েছিল। তার ঘটনাটা অনেককে খুব প্রভাবিত করেছে এবং তার ঘটনাটা ‘দ্য সিস্টারহুড অফ দ্য ট্রাভেলিং প্রম ড্রেস’ নামে পরিচিত।

কিন্তু কি এই ড্রেসটিকে এত স্পেশাল করে তুলেছে?

যখন ক্যাথরিন খুব কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছিল তখন তার বন্ধুরা সব সময় তার পাশে ছিল এবং এটা নিশ্চিত করেছিল যে সে যেন এই সুন্দর ড্রেসটা প্রমে পড়তে পারে। সে প্রম নাইট তার প্রেমিকের সাথে কাটিয়েছিল এবং বন্ধুদের সাথে প্রচুর মজা ও আনন্দ করেছিল।

ক্যাথরিন আরলিংটন, ম্যাসাচুসেটসের একজন খুবই সাধারণ মেয়ে ছিল, কিন্তু তার গল্পটা বিস্ময়কর। শত কঠিন সময় সত্ত্বে তার বন্ধুরা সবসময় তার পাশে ছিল এবং তাকে সমর্থন করে গেছে।

ক্যাথরিন এবং তার প্রম ড্রেস সম্পর্কে জানতে পড়তে থাকুন।

ক্যাথরিনকে দেখুন ।

প্রম নাইটের সময় তার ক্যান্সারের শেষ স্টেজ চলছিল। সে খুব উৎসাহিত ছিল কারণ কিছু মাস আগেও সে বুঝতে পারছিল না যে সে এই প্রম নাইটটা দেখতে পারবে কিনা। কিন্তু সে দারুণ সাহসী মেয়ে ছিল এবং সে তার প্রম নাইটে দারুণ আনন্দ করেছে।

তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

তার অবস্থা খুবই খারাপ ছিল, তাই তাকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল, কিন্তু প্রম নাইটের এক দিন আগে তাকে হাসপাতাল থাকে ডিসচার্জ করে দেওয়া হয় যাতে সে সেখানে যেতে পারে।

সে খুব আনন্দের সাথে জীবনকে উপভোগ করেছে।

সে তার মাকে বলেছে তার নিজেকে প্রথমবারের জন্য খুব সুন্দরী মনে হয়েছে এবং এটা ক্যাথরিনের জীবনে একটা খুব বিশেষ রাত ছিল।

সে শেষ পর্যন্ত প্রমে যেতে পারল।

ক্যাথরিন তার সময় শেষ হয়ে আসবার আগে পুরোপুরি জীবনটাকে উপভোগ করতে চেয়েছিল। সে রানীর মত বেঁচেছিল এবং তার বন্ধুদের মনে নিজের জন্য বিশেষ জায়গা তৈরি করে দিয়ে গেল।

২০১৪ সালে তার ক্যান্সার ধরা পড়ে।

একদিন সে আচমকা কাঁধে প্রচণ্ড ব্যাথা অনুভব করল, প্রথমে সে ভাবল যে খেলতে গিয়ে হয়ত লেগে গেছে। হাই স্কুলে সে হকি খেলেছে, কিন্তু এই চোট তার খেলা ধুলার জন্য হয়নি।

সে বরাবর ইতিবাচক মনোভাব রেখে গেছে।

হাসপাতালে থাকার সময়ে সে তার সমস্ত ক্লাস ওয়ার্ক শেষ করত এবং সে ছাত্র সংসদের ভোটে সভাপতিও নির্বাচিত হয়।

তার বন্ধুরা তার স্মৃতিকে সম্মান জানিয়েছে।

ক্যাথারিনের বন্ধুরা সবসময় তার পাশে ছিল এবং এখন তার প্রমের ড্রেসটি পরে তাকে সম্মান জানাচ্ছে।

তার এক বন্ধু সেই ড্রেসটি পড়ে আছে।

এই হচ্ছে জিলান, ক্যাথরিনের বন্ধু। সে আরলিংটনে ক্যাথরিনের জুনিয়ার ছিল এবং তার সাথে হকি টিমে খেলত। জিলান বলেছে এই ড্রেসটি পড়ে সে ক্যাথরিনের উপস্থিতি বুঝতে পেরেছে।

আরো কিছু বন্ধুও ড্রেসটা পড়েছে।

ক্যাথরিনের আর এক বন্ধু এমা স্কামবার তার সিনিয়র ওই ড্রেসটি পড়েছিল। লাউরেন হাউরিকান তার পরের বছর এই ড্রেসটা পড়েছিল, এবং পরে আরো কিছু বন্ধু তাদের দলে যোগ দেয়।

তার পরিবার এতে অবিভূত হয়ে পড়ে।

তারা খুব আনন্দিত যে ক্যাথরিনের সব এত ভাল বন্ধু ছিল যারা তার স্মৃতিকে যত্ন করে রেখেছে। তাদের পরিবার ক্যাথরিনের আরো অনেক বন্ধুদের কাছ থেকে অনুরোধ পেয়েছে যারা ওই ড্রেসটাকে পরের প্রমগুলিতে পড়তে চায়। কি সুন্দর!

About admin

Check Also

১৫ টি নকল জিনিস যা মেয়েরা গোপনে নিজেদের সৌন্দর্য বাড়াবার জন্য ব্যবহার করে…

মহিলারা ! বাড়ির মিষ্টি মেয়ে প্রাপ্তবয়স্ক মহিলা হয়ে ওঠার পর তাদের জীবনধারা এবং অভ্যাস পরিবর্তন …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *