Friday , September 22 2017
Home / খেলাধুলা / বিশ্ব একাদশে আমলার সঙ্গে ওপেনিংয়ে নেমে যা করল তামিম

বিশ্ব একাদশে আমলার সঙ্গে ওপেনিংয়ে নেমে যা করল তামিম

x
Loading...
Loading...
Loading...

ইন্ডিপেনডেন্স কাপ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম ম্যাচে বিশ্ব একাদশকে ২০ রানে হারিয়েছে স্বাগতিক পাকিস্তান। মঙ্গলবার লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে টস হেরে ব্যাটিং করতে নেমে বিশ্ব একাদশকে ১৯৮ রানের টার্গেট দেয় স্বাগতিকরা।

পাকিস্তানের বিপক্ষে বিশ্ব একাদশের হয়ে দক্ষিণ আফ্রিকার হাশিম আমলার সঙ্গে ওপেনিং করেন বাংলাদেশের ড্যাশিং ওপেনার তামিম ইকবাল। লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের প্রথমটিতে ১৯৮ রানের জয়ের লক্ষ্য নিয়ে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামেন এই দুই ব্যাটসম্যান। তবে তামিম ১৮ বল থেকে তিনটি চারের সাহায্যে ১৮ রান করে রুম্মন রাইসের বলে বোল্ড হয়ে যান।

এর আগে পাকিস্তান নির্ধারিত ২০ ওভার শেষে ৫ উইকেটে ১৯৭ রান সংগ্রহ করেছে পাকিস্তান। মাত্র ৮ রানে ফখর জামানের উইকেট হারিয়ে শঙ্কায় পড়ে পাকিস্তান। তবে এরপর আহমেদ শেহজাদ ও বাবর আজমের ব্যাটে প্রতিরোধ গড়ে পাকিস্তান। এই দুজন ৮১ বলে ১২২ রানের দুর্দান্ত এক জুটি গড়েন| এরপর আহমেদ শেহজাদ (৩৯) আউট হন| বাবর আজমও সাজঘরে ফিরে যান এরপর। আউট হওয়ার আগে বাবর ৫২ বলে ১০ চার ও দুই ছক্কার মারে করেন ৮৬ রান।

তিন উইকেট হারানো পাকিস্তানকে তখন পথ দেখান শোয়েব মালিক। ২০ বলে চারটি চার ও দুটি ছক্কার মারে করেন ৩০ রান। আর মাত্র চার বল খেলে ১৫ রানে ঝড়ো ইনিংস খেলেন ইমাদ ওয়াসিম। দুই ছক্কার মারে এ রান করেন তিনি। সেই সুবাদে পাকিস্তান ১৯৭ রানের বড় স্কোর গড়তে সক্ষম হয়। বিশ্ব একাদশের হয়ে থিসারা পেরেরা দুটি এবং মরনে মরকেল, বেন কাটিং ও ইমরান তাহির একটি করে উইকেট নেন।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকার ফাফ ডু প্লেসিস নেতৃত্বাধীন বিশ্ব একাদশ নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৭৭ রান করে। দলীয় ৪৮ রানেই দুই উইকেট হারিয়ে চাপে পরে সফরকারীরা। ওপেন করতে নামা তামিম ইকবাল ইনিংসের ষষ্ঠ ওভারে রুম্মান রইসের বলে বোল্ড হন। ১৮ বলে তিনটি চার মেরে ১৮ রান করেন তিনি। চার বল পরেই রুম্মানের ওই ওভারে ইমাদ ওয়াসিমের হাতে ক্যাচ তুলে দেন আরেক ওপেনার হাশিম আমলা। ১৭ বলে চারটি চার ও একটি ছক্কা হাঁকান তিনি।

২৫ বলে ২৫ করা অস্ট্রেলিয়ার টিম পেইন আর ৮ বলে ১৪ রান করা গ্রান্ট এলিয়টকে ফেরান সোহেল খান। এদিকে ১৮ বলে ২৯ রান করে ফাফ ডু প্লেসিস। আর ৭ বলে ৯ রান করে আউট হন দক্ষিণ আফ্রিকার ডেভিড মিলার। এ দুইটি উইকেট নেন শাদাব খান। শেষ দিকে ১১ বলে ১৭ রান করে রান আউট হন শ্রীলঙ্কার তিসারা পেরেরা। ১৬ বলে ২৯ রান করে ড্যারেন সামি আর কোন বোল না খেলেই বেন কাটিং অপরাজিত ছিলেন।

পাকিস্তানের হয়ে চার ওভার বল করে শাদাব (৩৩ রান), রুম্মান (৩৭ রান), সোহেল (২৮ রান) দুইটি করে উইকেট নেন। এর আগে টস হেরে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে ১৯৭ রান তুলে স্বাগতিকরা।

প্রথম ওভারেই বিশ্ব একাদশের ফাস্ট বোলার মরনে মরকেলের বলে প্যাভিলিয়নে ফিরে যান পাকিস্তানের ওপেনার ফখর জামান। পরে ওয়ান ডাউনে নামা বাবর আজমকে নিয়ে ১২২ রানের পার্টনারশিপ গড়েন আহমেদ শেহজাদ।

১৫ তম ওভারে বেন কাটিংয়ের ওভারে ব্যক্তিগত ৩৯ রানে আউট হন শেহজাদ। ৩৪ বলে তিনটি চার মারেন তিনি।

আর ইনিংসের শুরু থেকেই বিশ্বের সেরা বোলারদের শাসন করা বাবর ফেরেন ৮৬ রান করে। স্পিনার ইমরান তাহিরের বলে ক্যাচ দিয়ে ড্রেসিং রুমের পথ ধরেন তিনি। ১০টি চার ও দুইটি ছক্কায় ইনিংসটি সাজান তিনি। ১৮ তম ওভারে দলীয় ১৬১ রানে ব্যক্তিগত ৪ রান করে আউট হন স্বাগতিকদের অধিনায়ক সরফরাজ আহমেদ।

শেষ দিকে চারটি চার ও দুইটি ছক্কার সাহায্যে ২০ বলে দ্রুত ৩৮ রান করেন শোয়েব মালিক। পেরারার বলে বোল্ড হন তিনি। এদিকে মাত্র ৪ বলে অপরাজিত ১৫ রান করে টর্নেডো ইনিংস খেলে দলকে ১৯৭ রানে নিয়ে যান ইমাদ ওয়াসিম। তরুণ ফাহিম আশরাফ ১ বলে কোন রান না নিয়েই অপরাজিত ছিলেন।

বিশ্ব একাদশের হয়ে চার ওভারে ৫১ রানে দুইটি উইকেট নিয়েছেন পেরারা। আর চার ওভার করে বোলিং করে একটি করে উইকেট নিয়েছেন মরকেল (৩২রান), কাটিং (৩৮রান), তাহির (৩৪ রান)।

সংক্ষিপ্ত স্কোর: পাকিস্তান একাদশ: ১৯৭/৫। বিশ্ব একাদশ : ১৭৭/৭
ফলাফল পাকিস্তান ২০ রানে জয়ী

বিশ্ব একাদশ স্কোয়াড: হাশিম আমলা (দক্ষিণ আফ্রিকা), তামিম ইকবাল (বাংলাদেশ), ফাফ ডু প্লেসিস (দক্ষিণ আফ্রিকা), ডেভিড মিলার (দক্ষিণ আফ্রিকা), গ্রান্ট এলিয়ট (নিউজিল্যান্ড), থিসারা পেরেরা (শ্রীলঙ্কা), টিম পেইন (অস্ট্রেলিয়া), বেন কাটিং (অস্ট্রেলিয়া), ড্যারেন স্যামি (ওয়েস্ট ইন্ডিজ), ইমরান তাহির (দক্ষিণ আফ্রিকা), মরনে মরকেল (দক্ষিণ আফ্রিকা)। কোচ: অ্যান্ডি ফ্লাওয়ার (জিম্বাবুয়ে)

পাকিস্তান একাদশ স্কোয়াড: সরফরাজ আহমেদ (অধিনায়ক উইকেটরক্ষক), ফখর জামান, আহমেদ শেহজাদ, বাবর আজম, শোয়েব মালিক, ইমাদ ওয়াসিম. শাদাব খান, ফাহিম আশরাফ, হাসান আলী, রুম্মান রইস, সোহেল খান। কোচ: মিকি আর্থার

Loading...
Loading...
Loading...

Check Also

দিন শেষে এগিয়ে থাকলো বাংলাদেশ, দেখে নিন স্কোর!

x Loading... Loading... Loading... বাংলাদেশ-সাউথ আফ্রিকা সিরিজের আগে একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে আজ মাঠে নামে …